মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ন

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি
ভর্তি চলিতেছ রৌফন রেডিয়ান্ট স্কুলে প্লে গ্রুপ থেকে শুরু। চুলকাটি বাজার, (রুটস বাংলাদেশ) বনিকপাড়া রোড, বাগেরহাট।
সংবাদ শিরোনাম :
নয়ন স্মৃতি নাইট শর্ট ক্রিকেট টুর্নামেন্টে সৈয়দপুর চ্যাম্পিয়ন আত্মসমর্পণকারী দস্যুরা পেল র‌্যাবের ঈদ উপহার বাগেরহাটে দুস্থ ও অসহায়দের মধ্যে ঈদ উপহার বিতরণ করেছেন শেখ তন্ময় এমপি বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির দাবিতে মোংলায় মানববন্ধন বর্ণাঢ্য আয়োজনে রামপালে জাতীয় ভোটার দিবস পালন রামপালে স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা  প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী বিতরণ করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন পশুর চ্যানেলে তলা ফেটে দুর্ঘটনাকবলীত কার্গো জাহাজটি এখও ঝুকি মুক্ত নয়, চলছে কয়লা অপসারণ মোংলায় কয়লা নিয়ে পশুর নদীতে কার্গো ডুবি, ১১ নাবিক জীবিত উদ্ধার মোংলা বন্দরের সিবিএ’র কর্মচারী সঘের সাবেক সাঃ সম্পাদক এস এম ফিরোজ সহ ৩ জনের সদস্য পদ বাতিল
বাগেরহাটের চন্দ্রমহল (ইকোপার্ক) পরিদর্শন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

বাগেরহাটের চন্দ্রমহল (ইকোপার্ক) পরিদর্শন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

 চুলকাটি ডেস্ক 
বাগেরহাট সদর উপজেলার রনজিতপুর এলাকায় অবস্থিত “চন্দ্রমহল ইকোপার্ক” ভারতের আগ্রার তাজমহলের আদলে গড়ে তোলা বাগেরহাট চন্দ্রমহল ইকোপার্ক ঈদ উপলক্ষে  আজ  (২৮ এপ্রিল) বিকালে আকস্মিক পরিদর্শন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বাগেরহাট জেলা যুবলীগ সভাপতি সরদার নাসির উদ্দিন,  এ সময় আরোও উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট ২ আসনের শেখ সারহান নাসের তন্ময়ের একান্ত সচিব শেখ শাহীন, ইমন ফারাজী প্রমূখ। বিভিন্ন জেলা থেকে  প্রতিনিয়ত  দর্শনার্থীর ভিড় বাড়ছে। ” এখন বিনোদন প্রেমীদের অন্যতম আকর্ষনে পরিনত হয়েছে। বাগেরহাট ঘুড়তে আসা এসব পর্যটকরা বিশ্ব ঐতিহ্য ষাটগম্বুজ মসজিদ ও সুন্দরবন দেখার পাশাপাশি মুগ্ধ হচ্ছেন চন্দ্রমহল ইকোপার্ক দেখেও। ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই প্রতিনিয়ত দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে দর্শনার্থী ভিড় করছেন পার্কটিতে। চন্দ্রমহল ইকোপার্কটি সৃষ্টির মধ্যে সৃজনশীলতা রয়েছে। এর মাধ্যমে শুধু বিনোদনই নয়, ইতিহাস ঐতিহ্য জানারও সুযোগ রয়েছে।  আকস্মিক এই পরিদর্শনকালে তিনি চারিদিকে ঘুরে দেখে চন্দ্র মহলেও দর্শনার্থীরা ঈদ উপলক্ষে ভ্রমণ করছেন। ঐতিহ্য বিষয়ক নানা প্রতিকৃতি দিয়ে সাজানো এই নান্দনিক পার্ক দেখে মুগ্ধ হচ্ছে দর্শনার্থীরা। পার্কটির প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ আমানুল হুদার স্ত্রী নাসিমা হুদা চন্দ্রার নামানুসারেই পার্কটির নামকরণ করা হয়েছে। প্রায় ১০ একর জমির ওপর গড়ে ওঠা এই চন্দ্রমহলের মূল আকর্ষণ ভারতের তাজমহলের আদলের তৈরী বাড়ীটি। যার চারিদিকে পানিবেষ্টিত। একপাশে বাঁশের পুল দিয়ে এখানে যেমন যাওয়া যায় তেমনি মূল প্রবেশ পথটি পানির মধ্য সুড়ঙ্গ পথ দিয়েও যাওয়া যায়। যার দু’পাশে রয়েছে দেশি-বিদেশী নানা প্রজাতির ফুল গাছ। এছাড়া বিভিন্ন ভাস্কর্যের মাধ্যমে দেশীয় সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়েছে। এখানে বেশ কয়েকটি পুকুর রয়েছে। চন্দ্রমহলের অভ্যন্তরে প্রতিষ্ঠাতার সংগৃহীত বিভিন্ন জিনিসপত্র প্রদর্শিত হয়েছে। সেখানে গ্রাম্য মানুষের চরিত্র নিয়ে প্রতিকৃতি তৈরি করা হয়েছে। আদি আসবাবপত্র আর তৈজসপত্র ছাড়া কিছু স্থির ছবি রয়েছে সেখানে। লেকের পাড় রয়েছে নারিকেল গাছের সারি। গ্রাম পঞ্চায়েত ও মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্যের পাশাপাশি রয়েছে মাস্টারদা সূর্যসেন, বেগম রোকেয়া, আতাউল গনি ওসমানী, মাদার তেরেসা, মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্যও। রয়েছে রবীন্দ্রনাথ ও নজরুলসহ কবি-সাহিত্যিকদের সংক্ষিপ্ত জীবনী। শিশুদের খেলার জন্য রয়েছে রেলগাড়ি, মটর বাইকসহ অন্যান্য খেলনা সামগ্রী। তাজমহলের আদলে তৈরী চন্দ্রমহল ইকোপার্কের পরিবেশ দেখে মুগ্ধ হলাম।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

  1. © স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers