সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:৪১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে জেলে আহত হওয়ার দু’দিন লোকালয়ে বাঘের গর্জন নির্বাহী প্রকৌশলীর উপর হামলার প্রতিবাদে ফকিরহাটে মানববন্ধন ফকিরহাট খাদ্যগুদামে বিদায়ী ও নবাগত কর্মকর্তাদের সংবর্ধনা ফকিরহাটে কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনায় মামলা,দু’জন আটক প্রকৌশলীর উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের শাস্তির দাবিতে বাগেরহাটে মানববন্ধন প্রেসক্লাব রামপালের কমিটি গঠন সভাপতি সবুর রানা সম্পাদক সুজন মজুমদার বাগেরহাটে দৈনিক গনমুক্তির ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মোংলা সুন্দরবনে গোলপাতা আহরন মৌসুম শুরু ফকিরহাটে নিখোঁজ হওয়ার একসপ্তাহ পর কলেজ ছাত্র অনিকের লাশ উদ্ধার ফকিরহাটের পিলজঙ্গের কংগ্রেস মোড়ের অদুরে ছিনতাই সংঘঠিত
চুলকাঠির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম এর দৌহিত্রর শুভ আগমনকে ঘিরে:অস্ট্রেলিয়ায় আনন্দ-উচ্ছ্বাস

চুলকাঠির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম এর দৌহিত্রর শুভ আগমনকে ঘিরে:অস্ট্রেলিয়ায় আনন্দ-উচ্ছ্বাস

বিপ্লব আজাদ : (অস্ট্রেলিয়া থেকে) : আঞ্চলিক স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ছবি পোস্ট অভিনন্দনের জোয়ার। স্থানীয় সাংসদ কমেন্টে বলে দিলেন, এই ছেলে উওলিনগন হাসপাতালের ইতিহাস স্বরণীয় হয়ে থাকবে।বার্থ ইউনিটের ম্যানেজার তো রীতিমতো ফুল-মিষ্টি পাঠিয়ে দিয়েছে। যাকে ঘিরে এত আলোচনা তার বয়স মাত্র দুদিন।আন্দালিব রহমান।ঘটনার এখানেই শেষ নয়। অস্ট্রেলিয়ার উপকূলীয় শহর উওলিনগনের শতবর্ষে পত্রিকা ইলাওয়ারা মারকুরিতেও বুধবার সকালে জন্ম নেওয়া বাচ্চাটিকে নিয়ে খবর প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু কেন? বাংলাদেশের দম্পতি তাহেরা উর্মি এবং মাহবুবুর রহমানের ছেলের যেখানে জন্ম হয়েছে, সেটি অস্ট্রেলিয়ার বহুল আলোচিত একটি বিলাসবহুল হাসপাতাল। একবার দেখলেই পাঁচতারা হোটেলের মতো মনে হবে। কোটি কোটি টাকা খরচ করে হাসপাতালটির বার্থ ইউনিট সম্প্রতি নতুনভাবে সাজানো হয়েছে। কর্তৃপক্ষের দাবি, এমন আধুনিক বার্থ ইউনিট  অস্ট্রেলিয়ায় তো বটে; গোটা পৃথিবীতে বিরল। এই ইউনিট চালু পর আন্দালিবেরই  প্রথম জন্ম হলো।

গত মঙ্গলবার নতুন ইউনিটের কার্যক্রম শুরু হয়। সেদিন কোনো গর্ভবতী ডেলিভারির জন্য হাসপাতালে যাননি। বুধবার স্থানীয় সময় রাতে মাহবুবুর রহমান তার স্ত্রী  তাহেরাকে নিয়ে সেখানে যান। তাদের সন্তান পৃথিবীতে আসে গভীর রাতে, সাড়ে তিনটার দিকে। ডাক্তারদের আয়োজন দেখে নতুন মা হওয়া উর্মি রীতিমতো উচ্ছ্বসিত।ইলাওয়ারাকে তিনি বলেন, অনেক ভাগ্যবতী মনে হচ্ছে নিজেকে। খুব দুশ্চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু নতুন ইউনিটে ঢোকার পর সত্যিই দারুণ অনুভূতি হয়েছিল। প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে এ মাস্টার্স করতে উর্মি তার স্বামীকে নিয়ে ১৮ মাস আগে অস্ট্রেলিয়া যান। তিনি বলেন, আমার ছেলেকে মা-বাবা বাংলাদেশ থেকে দেখতে আসতে চেয়েছিলাম। কিন্তু মহামারীর কারণে সেটি সম্ভব হয়নি। এত সুন্দর ভাবে ওকে পৃথিবীতে আনায় মহান আল্লাহ নিকট ও কতৃপক্ষের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। এই হাসপাতালটিতে প্রতিবছর প্রায় ২ হাজার ৫০০ শিশু জন্ম হয়। ২২ বছরের ক্যারিয়ারে অনেক শিশুর জন্ম দেখেছেন মিসেস আতকিন। কিন্তু নতুন ইউনিটের মতো এমন সুবিধা দেখে নিজেই এখন অবাক এই নারী চিকিৎসক। স্থানীয় নারীরা বিশ্বমানের হাসপাতাল সন্তান প্রসবের সুযোগ পাচ্ছে, এটি ভাবতেই ভালো লাগছে। একজন নারীর জন্য যা যা দরকার, তার সব সুবিধা আমরা রেখেছি।

 

চুলকাঠি২৪/নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers