মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৬ অপরাহ্ন

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি
ভর্তি চলিতেছ রৌফন রেডিয়ান্ট স্কুলে প্লে গ্রুপ থেকে শুরু। চুলকাটি বাজার, (রুটস বাংলাদেশ) বনিকপাড়া রোড, বাগেরহাট।
সংবাদ শিরোনাম :
নয়ন স্মৃতি নাইট শর্ট ক্রিকেট টুর্নামেন্টে সৈয়দপুর চ্যাম্পিয়ন আত্মসমর্পণকারী দস্যুরা পেল র‌্যাবের ঈদ উপহার বাগেরহাটে দুস্থ ও অসহায়দের মধ্যে ঈদ উপহার বিতরণ করেছেন শেখ তন্ময় এমপি বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির দাবিতে মোংলায় মানববন্ধন বর্ণাঢ্য আয়োজনে রামপালে জাতীয় ভোটার দিবস পালন রামপালে স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা  প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী বিতরণ করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন পশুর চ্যানেলে তলা ফেটে দুর্ঘটনাকবলীত কার্গো জাহাজটি এখও ঝুকি মুক্ত নয়, চলছে কয়লা অপসারণ মোংলায় কয়লা নিয়ে পশুর নদীতে কার্গো ডুবি, ১১ নাবিক জীবিত উদ্ধার মোংলা বন্দরের সিবিএ’র কর্মচারী সঘের সাবেক সাঃ সম্পাদক এস এম ফিরোজ সহ ৩ জনের সদস্য পদ বাতিল
রামপালে  আদালতে মামলা করেও নিরাপত্তাহীনতায় যুবতী 

রামপালে  আদালতে মামলা করেও নিরাপত্তাহীনতায় যুবতী 

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

রামপালে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে যুবতী মুর্শিদা বেগম (৩৪) কে মারপিটের ঘটনায় বাগেরহাটের বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার (২৯ মে) বাগেরহাটের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত -২ এ মামলাটি করেন ভুক্তভোগী মুর্শিদা বেগম। বিজ্ঞ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট বাগেরহাটের পিবিআই কে মামলাটি তদন্ত করে রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।
 মামলার আসামীরা হলেন, উপজেলার শ্রীরম্ভা গ্রামের গোলাম শেখের পুত্র মিজান শেখ (২৮), মাহাবুব শেখের কন্যা আফরোজা বেগম (২৮), গোলাম শেখের পুত্র মাহাবুব শেখ (৫০), নুরু শেখের পুত্র মেহেদী (৩২), আ. রহমান শেখের পুত্র নুরু শেখ (৬০), শের আলীর পুত্র লিয়াকত আলী ও নুরু শেখের কন্যা তানিয়া (৪০)।
মামলা করার পরেও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন ভুক্তভোগী পরিবারটি। মামলার এজাহারে মুর্শিদা উল্লেখ করেন, তার পিতা মাহাতাব উদ্দিন শেখের বাস্ত ভিটা নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। তার জের ধরে গত ১১ মে বৃহস্পতিবার সকাল ৭ টায় এজাহারভূক্ত আসামীরা দা, লাঠি ও সাবল নিয়ে বসত বাড়ীতে ঢুকে হামলা করে। এতে বাঁধা দিলে মুর্শিদাসহ বাড়ীর সবাইকে মারপিট করে জখম করে। এ সময় তারা তার ফোন ভেঙ্গে ফেলে ও কানের দুল ছিনিয়ে নেয়। গুরুতর আহত মুর্শিদাকে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।
তিনি এজাহারে উল্লেখ করেন, বাগেরহাটের বিজ্ঞ এডিএম কোর্ট ১৪৪ ধারার মামলা চলমান থাকার পরেও প্রতিপক্ষ তর্কিত ভিটায় কাজ করছে। মুর্শিদা অভিযোগ করে বলেন, আসামিরা অত্যান্ত প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা বিচার পাচ্ছি না, আমারা পরিবারের সদস্যরা কেউ নিরাপদ নই। যে কারণে আমরা রামপাল থানার সাহায্য কামনা করছি।
আদালতে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এ্যাডভোকেট মোসাম্মাৎ মেহেরুন্নেসা।
Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

  1. © স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers