বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
শেখ হেলাল উদ্দীন সরকারী কলেজে পাঠদানের উদ্বোধন ও বৃত্তি প্রদান রামপালে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত চন্ডিতলা স্কুলের শিক্ষার্থীরা পেল পোশাক বাগেরহাটে প্রতিবন্ধিকে মারপিটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন রামপালে কাদিরখোল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪১ তম বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠিত বাগেরহাটে “উগ্রবাদ প্রতিরোধে ছাত্র, গণমাধ্যমকর্মী ও সুশীল সমাজের ভূমিকা” শীর্ষক দিনব্যাপি সেমিনার অনুষ্ঠিত ফ্রী ফায়ার গেম নিয়ে দ্বন্দ, ভ্যান চালক বন্ধুকে হত্যা করে গ্যারেজ মেকানিক বাগেরহাটে সন্ত্রাস দমন ও আন্তর্জাতিক অপরাধ প্রতিরোধে দিনব্যাপী সেমিনার আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে দেশে লুটপাটের মহোৎসব চলছে সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে জেলে আহত হওয়ার দু’দিন লোকালয়ে বাঘের গর্জন নির্বাহী প্রকৌশলীর উপর হামলার প্রতিবাদে ফকিরহাটে মানববন্ধন
রাজনৈতিক দলকে নিশ্চিহ্ন করতে অন্য কোনো দেশে এমন হত্যাকাণ্ড হয়নি’

রাজনৈতিক দলকে নিশ্চিহ্ন করতে অন্য কোনো দেশে এমন হত্যাকাণ্ড হয়নি’

চুলকাঠি ডেস্ক : একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, পৃথিবীর অন্য কোনো দেশে রাজনৈতিক দলকে নিশ্চিহ্ন করে ফেলার জন্য এ রকম কোনো হত্যাকাণ্ড করা হয়নি। একই সঙ্গে, এ-সংক্রান্ত মামলাটির শুনানি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আদালতের কাছে প্রার্থনা করব।

বুধবার (১৯ আগস্ট) সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন রাষ্ট্রের প্রধান এই আইন কর্মকর্তা।

‘মামলাটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শুনানি করার সুযোগ আছে কি-না’-এমন প্রশ্নের জবাবে মাহবুবে আলম বলেন, ‘নিশ্চয় আছে। ঘটনা তো অনেক আগের। এই মামলাটার যাতে বিচার না হয়, আসল আসামিরা যাতে ধরা না পড়ে, সেজন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করা হয়েছিল। কাজেই মামলাটির শুনানি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হবে-এটা আমরা মনে করি এবং সে ব্যাপারে আদালতের কাছে প্রার্থনা করব।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান সাহেব মৃত্যুর আগেও আফসোস করেছেন আমাদের কাছে। তিনি বলেছেন, আমি কি বিচার দেখে যেতে পারব না। এখানে ওনার স্ত্রীও মারা গেছেন। কাজেই এ হত্যাকাণ্ড তো নিশ্চয় কোনো ভূতে করে যায়নি। রাজনৈতিক দলকে নিশ্চিহ্ন করে ফেলার জন্য যে আক্রমণ…এটা সাধারণভাবে একটা বাচ্চারও বুঝতে অসুবিধা হয় না যে, অন্য রাজনৈতিক দল করেছে এটা। এ সমস্ত কথা ধামাচাপা দেয়ার জন্যই বলে।’

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলাটি চালানো হয়। অল্পের জন্য ওই হামলা থেকে প্রাণে বেঁচে যান বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি (তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী) শেখ হাসিনা। তবে হামলায় আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, সাবেক রাষ্ট্রপতি (প্রয়াত) জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন নিহত হন। আহত হন দলের তিন শতাধিক নেতাকর্মী।

২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর ওই ঘটনায় বিচারিক আদালত সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও বিএনপি নেতা আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দেন। একই সঙ্গে, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান) তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers