বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:১৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ

আমাদের চুলকাঠি ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন chulkati24@gmail.com এই ই-মেইলে ।

শিরোনাম :
ফকিরহাটে কর্মসম্পাদন চুক্তি( APA)আওতায় জনসম্পৃক্ততা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত আগামী সংসদ নির্বাচনের মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড এর নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে,চিতলমারি উপজেলা কমিটির আলোচনা সভা নভেম্বর ২০২২ সেভ দ্য রোড-এর প্রতিবেদন বাইক লেন না থাকায় নভেম্বরে দূর্ঘটনা বেড়ে ৪ হাজার ১৯৩ জবিসহ বিভিন্ন স্থানে সংবাদযোদ্ধাদের উপর হামলার নিন্দা ও বিচার দাবি বাগেরহাটে জামায়াত-শিবিরের ৫ নেতাকর্মী গ্রেফতার, ৪ ককটেল উদ্ধার বাগেরহাটের মোল্লাহাটে ট্রলি উল্টে চালক নিহত চুলকাটি প্রেসক্লাবে মেম্বর প্রার্থী মনিরুলের সংবাদ সম্মেলন ফকিরহাটে মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা ফকিরহাটে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস উপলক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক সভা বাগেরহাটে সড়ক দূর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ছাগল বিতরণ
বাগেরহাটে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর এপিএস পরিচয় দেয়া এক প্রতারকের দৌরাত্ব প্রতিকার চেয়ে এলাকাবসির মানববন্ধন- সংবাদ সম্মেলন

বাগেরহাটে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর এপিএস পরিচয় দেয়া এক প্রতারকের দৌরাত্ব প্রতিকার চেয়ে এলাকাবসির মানববন্ধন- সংবাদ সম্মেলন

মোল্লা আব্দুর রব 

বাগেরহাটে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর এপিএস পরিচয় দিয়ে শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদ নামে এক প্রতারকের দৌরত্বের প্রতিকার চেয়ে কচুয়া উপজেলার রাঢ়িপাড়া ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছে। মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলনে ধর্ষণ-নিযার্তন ও চাকুরী দেয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়া শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবী করা হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতিকের এপি এসের ভূয়া পরিচয় দিয়ে কচুয়া উপজেলার রাঢ়িপাড়া ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া গ্রামের মৃত শেখ আবুল হাসেমের ছেলে শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের স্টিকারবাহী গাড়ী চড়ে এলাকায় নিজ নামে একটি বাহিনী গড়ে তুলেছে।এপি এসের ভিজিটিং কার্ড দেখিয়ে সরকারী চাকুরী দেয়ার নাম করে এলাকার সাধারন মানুষের কাছ থেকে প্রতারনা করে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।এলাকায় মাদকের ব্যবসার পাশাপাশি নারীদের সম্ভমহানী করে এলাকা ছাড়া করার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সমস্যার সৃষ্টি করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে মানব বন্ধনে উল্লেখ করা হয়।মানববন্ধন থেকে প্রতারক শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবী করা হয়। মানববন্ধন শেষে বাগেরহাট প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে যুবলীগ কর্মী মো. সোয়েব এসব দাবীর পাশাপাশি তার বোনজামাই রেজাউল করিম রাসেলকে যমুনা ব্যাংকে চাকুরী দেয়ার নাম করে দুই দফায় ৬ লাখ টাকা নিয়েছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর ভূয়া এপিএস শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদ। দীর্ঘদিন ধরে যমুনা ব্যাংকে চাকুরী দিতে না পারায় এখন টাকা ফেরত চাইলে সে টাকা না দিয়ে ওল্টো আমাকে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যাসায়ি বলে বিভিন্ন স্থানে অভিযোগ করছে।সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন লোকজনকে দেয়া বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর এপিএসের ভিজিটিং কার্ড,বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের স্টিকারবাহী গাড়ী এবং নারীর সম্ভমহানীর ভিডিও চিত্র সাংবাদিকদের দেয়াসহ তার গ্রেপ্তার ও বিচার দাবী করা হয়। মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন এলাকাবাসির এসব অভিযোগ অস্বীকার করে শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন সাঈদ মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের জানান,এসব অপ্রচার।আমি কখনো বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর এপিএস ছিলাম না।তবে,বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের স্টিকারবাহী গাড়ী চড়ে এলাকায় ঘুরে বেড়ানোর বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers