সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৫:১২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ

আমাদের চুলকাঠি ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন chulkati24@gmail.com এই ই-মেইলে ।

শিরোনাম :
রাখালগাছি ইউপি নির্বাচনে দলীয় ভাবে ও জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রবিউল ইসলাম ফারাজী রামপালে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি থেকে বাদ দেওয়ায় মানববন্ধন বাগেরহাটে কাভার্ডভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত বাগেরহাটে দি হাঙ্গার প্রজেক্টের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস পালিত ফকিরহাট উপজেলাকে এটুআই কর্তৃক স্মাট উপজেলা ঘোষনা মোমিন মেহেদীর ভেরিফায়েড পেইজ হ্যাকড রামপাল পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি হলেন রবিউল ইসলাম তোয়াব খানের মৃত্যুতে অনলাইন প্রেস ইউনিটির শোক “সেভ দ্য রোড-এর প্রতিবেদন” সেপ্টেম্বরে ৩ হাজার ৫৯৫ দুর্ঘটনায় প্রতিদিন আহত ১১৭, নিহত ১৭ জন উন্মোচন ক্লাব ও আবাহনী ক্রীড়াচক্র যৌথ চ্যাম্পিয়ন
“কাতার চ্যারাটির অর্থায়নে” বাগেরহাটের বিজয়পুরে সোলার নলকুপ স্থাপন করায় ৩হাজার মানুষের পানি সংকট নিরসন

“কাতার চ্যারাটির অর্থায়নে” বাগেরহাটের বিজয়পুরে সোলার নলকুপ স্থাপন করায় ৩হাজার মানুষের পানি সংকট নিরসন

শেখ আনিছুর রহমান,চুলকাঠি(বাগেরহাট)ঃ বাগেরহাট সদর উপজেলার বেমতা ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামে প্রকল্পের আওতায় তীব্র লবনাক্ত এই এলাকায় একটি সোলার নলকুপ স্থাপন করে ১টি ওভারহেডটেংকি হতে আড়াই কিঃমিঃ পাইপ লাইন করে ৩০টি পানি সরবরাহেয়র পয়েন্ট করে প্রায় ৩হাজার মানুষের জন্য খাবার সুপিয় পানির ব্যাবস্থা করেছে কাতার চ্যারাটি। সরজমিনে অনুস›দ্ধানে জানা গেছে কাতার চ্যারাটির অর্থায়নে চলিতি বছর এই প্রকল্পটির নির্মান করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বাগেরহাটের স্বপনীল এন্টারপ্রাইজ । বাগেরহাটের বেমতা ইউনিয়নের ২নং বিজয়পুর গ্রামের একটিসৌর বিদুৎ চালিত টাওয়ার নির্মান করে প্রতি ১০টি বাড়ি পরপর ১টি পানি সরবরাহের পয়েন্ট নির্মান কওে পাইপ লাইনের মাধ্যমে গ্রামের ২.৫ কিঃমিঃ রাস্তার পাশে মোট ৩০টি পানি সরবরাহের পয়েন্ট নির্মান করা হয়েছে। যার থেকে এই গ্রামের প্রায় ৩ হাজার মানুষ বাড়ীর কাছে বিনা মূল্যে পাচ্ছে সুপিয় খাবার পানি। স্থানীয় বাসি›দ্ধা কবির হাওলাদার বলেন এই গ্রামের পুকুরের পানি লবনাক্ত হওয়ায় ও গভীর নলকুপ স্থাপন করতে বারবার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হওয়ায় ইতি পূর্বে তীব্র সুপীয় পানির সংকট ছিল কাতার চ্যারিটির এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ায় আমরা খুব খুশি হয়েছি। স্থানীয় মসজিদের মোয়াজেম আবু হানিফ বলেন আগে মিষ্টি পানির আনতে ৩মাইল দূরে যাইতে হত এখন কাতার চ্যারাটি এই সোলারের মাধ্যমে গ্রামের সব খানে মিষ্টি খাবার পানি পাওয়া যাচ্ছে তিনি কাতার চ্যারাটির এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। ষাটউর্দ্ধ বৃদ্ধা বিধবা রহিমা বেগম বলেন কিছুদিন আগে খাবার পানি আনতে ২মাইল যাইতে হত এখন কাতার চ্যায়াটি আমার বাড়ির সামনে মিষ্টি পানির কল বসায়ছে মুখ ঘুরাইলেই পানি পড়ে কলচাপা লাগেনা। কাতার চ্যায়াটি আমাগো খাবার পানির দিচ্ছে। এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বেমতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন টগর বলেন আমার ইউনিয়নটি দড়াটানা নদীর পাশে অবস্থিত তাই আমার এলাকার বিজয়পুর সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষের যুগযুগ ধরে সুপীয় খাবার পানির সমস্যা ছিল সম্প্রতি কাতার চ্যারিটির অর্থায়নে ও উদ্যোগে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করে বিজয়পুরের প্রায় ৩হাজার মানুষের খাবার পানির ব্যাবস্থা করেছে এতে বিজয়পুর বাসী খুব উপকৃত হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers