বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বাগেরহাটে প্রতিবন্ধিকে মারপিটের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন রামপালে কাদিরখোল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪১ তম বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠিত বাগেরহাটে “উগ্রবাদ প্রতিরোধে ছাত্র, গণমাধ্যমকর্মী ও সুশীল সমাজের ভূমিকা” শীর্ষক দিনব্যাপি সেমিনার অনুষ্ঠিত ফ্রী ফায়ার গেম নিয়ে দ্বন্দ, ভ্যান চালক বন্ধুকে হত্যা করে গ্যারেজ মেকানিক বাগেরহাটে সন্ত্রাস দমন ও আন্তর্জাতিক অপরাধ প্রতিরোধে দিনব্যাপী সেমিনার আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে দেশে লুটপাটের মহোৎসব চলছে সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে জেলে আহত হওয়ার দু’দিন লোকালয়ে বাঘের গর্জন নির্বাহী প্রকৌশলীর উপর হামলার প্রতিবাদে ফকিরহাটে মানববন্ধন ফকিরহাট খাদ্যগুদামে বিদায়ী ও নবাগত কর্মকর্তাদের সংবর্ধনা ফকিরহাটে কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনায় মামলা,দু’জন আটক
লবনাক্ত রামপালের একমাত্র মিষ্টিপানির জলাধার ঝলমলিয়া দিঘী

লবনাক্ত রামপালের একমাত্র মিষ্টিপানির জলাধার ঝলমলিয়া দিঘী

মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটে লবনাক্ত রামপাল উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ প্রাকৃতিক জলাধার ঐতিহ্যবাহী ঝলমলিয়া দিঘী’র কচুরিপানা পরিষ্কারের কাজ শুরু করেছেন স্থানীয় জনগণ। মিষ্টিপানির নিরাপদ এ দিঘী পরিষ্কার রাখতে ঝলমলিয়া দুর্গা মন্দির কমিটির আয়োজনে ও স্থানীয় জনগণের সমন্বয়ে শতাধিক মানুষ এই কচুরিপানা পরিষ্কারে অংশগ্রহণ করেন।
শনিবার সকাল থেকে শুরু হওয়া বিশাল দিঘীর কচুরিপানা প্রায় এক সপ্তাহ ধরে পরিষ্কার করা হবে। সুপেয় জল রক্ষার্থে এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে হুড়কা ইউপি চেয়ারম্যান তপন কুমার গোলদার।
স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, চারিদিক নোনাজলে বেষ্টনী থাকলেও এই পুকুরের জল সারাবছরই থাকে মিষ্টি। দূর দূরান্ত থেকেও এই সুপেয় মিষ্টি জল নিতে ছঁুঁটে আসেন শত-শত মানুষ। আবার এই পুকুরের জল বহন করে তা বিক্রি করে জীবন বাঁচে অনেক পরিবারের। এক কথায় অপরিহার্য এই পুকুরের সুপেয় মিষ্টি জলের উপর নির্ভরশীল এখানকার হাজার হাজার পরিবার। পুকুরে স্নান ও হাত-মুখ ধোঁয়া, গবাদিপশু পুকুরে নেমে জল নষ্ট করা, ময়লা আবর্জনা ফেলা, পুকুরের মাছ নিধন সম্পুর্ণ নিষিদ্ধ। ঐতিহ্যের এই পুকুর সংস্কার ও সুপেয় জল নিরাপদ রাখতে তাই স্থানীয়দের সমন্বয়ে নেই কোন কার্পণ্যতা।
হুড়কা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বিচিত্র বীর্য পাড়ের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঐতিহ্যের এই পুকুর সংস্কার ও দেখভাল সর্বদাই করে থাকি। আমাদের নির্ভোরতার সুপেয় জলের একমাত্র এই ঝলমলিয়া দিঘীই ভরসা। তাই এলাকাবাসীর যৌথ উদ্যোগে প্রতিবছরই পুকুরের শ্যাওলা ও কচুরিপানা পরিষ্কার করা হয়ে থাকে। যে কোন মূল্যে আমাদের এই পুকুরের জল নষ্ট না হয় সেজন্য আমরা সবাই সচেতনতা অবলম্বন করি। হুড়কা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তপন কুমার গোলদারের সাংবাদিকদের জানান, আমাদের সমন্বয়ের কোন অভাব নেই পুকুর পরিষ্কারে তা আবারও প্রমাণ হলো। আমরা একে অপরের পরিপূরক। চেয়ারম্যান নয়, একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে এই পুকুরের সুপেয় মিষ্টি জল নিরাপদ ও পরিষ্কার রাখতে তৎপর রয়েছি। যে কোন ভালো কাজে আমি তাদের সাথে থাকি এবং সবসময়ই পর্যবেক্ষণ ও পুকুরের সার্বিক উন্নয়নে আমার লক্ষ্য রয়েছে। এলাকাবাসীর সমন্বয়ে পুকুর পরিষ্কারে আমি অভিনন্দনসহ তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
ঝলমলিয়া দিঘীর শ্যাওলা ও কচুরিপানা পরিষ্কারে অংশগ্রহণ করেন, শিবানন্দ রায়, এটিইও পুষ্পজিৎ মন্ডল, এ্যাডভোকেট দিব্যেন্দু বোস, সাংবাদিক সুজন মজুমদার, মহানন্দ হালদার, ইউপি সদস্য আব্দুল্লা মোড়ল, শিশির মন্ডল, মতিউর সরদার, রিপন মন্ডল, অক্ষয় বিশ্বাস, স্বপন মন্ডল, বিধান রায়, শ্যামলি মন্ডল, প্রনব সমার্দার, সুকির্তি মন্ডল, আশিষ মন্ডল, প্রফুল্ল মন্ডল, বিভাষ মন্ডল, স্বপন বিশ্বাস, শেখর চৌধুরী, জিতেন মন্ডল, অসিত বিশ্বাস, সুধন্য মন্ডল, সুচন্দনা মজুমদার, গায়েত্রী বিশ্বাস, মিঠুন বাছাড়, বিশ্বজিৎ মন্ডল, নিতা মন্ডল, গোপেশ্বরি বাছাড়, বাসন্তি, কবিতা প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers