শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি
ভর্তি চলিতেছ রৌফন রেডিয়ান্ট স্কুলে প্লে গ্রুপ থেকে শুরু। চুলকাটি বাজার, (রুটস বাংলাদেশ) বনিকপাড়া রোড, বাগেরহাট।
সংবাদ শিরোনাম :
রামপালে স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা  প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী বিতরণ করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন পশুর চ্যানেলে তলা ফেটে দুর্ঘটনাকবলীত কার্গো জাহাজটি এখও ঝুকি মুক্ত নয়, চলছে কয়লা অপসারণ মোংলায় কয়লা নিয়ে পশুর নদীতে কার্গো ডুবি, ১১ নাবিক জীবিত উদ্ধার মোংলা বন্দরের সিবিএ’র কর্মচারী সঘের সাবেক সাঃ সম্পাদক এস এম ফিরোজ সহ ৩ জনের সদস্য পদ বাতিল ফকিরহাটের মাসকাটায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলার ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের। মাদারদিয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা  মোংলা বন্দর ও উপকুলীয় এলাকায় হঠাৎ বৃষ্টি কেএমপি’র মাদক বিরোধী অভিযানে মাদক কারবারি ৮ জন আটক চোরাকারবারি চক্রের মূলহোতাকে আটক করেছে মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন
মংলা থেকে ট্রেন যাবে ভারত-নেপাল-ভুটানে

মংলা থেকে ট্রেন যাবে ভারত-নেপাল-ভুটানে

পঞ্চগড় থেকে বাংলাবন্ধ হয়ে ভারতের শিলিগুড়ির সঙ্গে এ রেল যোগাযোগ সরাসরি সংযুক্ত হবে

আগামী ২০২২ সালে প্রকল্প মেয়াদের মধ্যেই কাজ শেষে ওই বছরেই মোংলা-খুলনা রেলপথ চালু হবে। মংলা থেকে সরাসরি পণ্য নিয়ে ট্রেন যাবে ভারত নেপাল ও ভুটানে।

নির্মাণাধীন খুলনা-মংলা রেল প্রকল্পের সুযোগ সুবিধার বিষয়ে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের রেস্ট হাউসে খুলনার রেলপথ বিভাগ ও মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকের মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, দেশের দ্বিতীয় সমুদ্র বন্দর মোংলার সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য খুলনা থেকে মোংলা পর্যন্ত রেল লাইন স্থাপনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। প্রকল্প মেয়াদের মধ্যেই রেল চালু হবে। এই রেলপথ দিয়ে যাত্রী পরিবহণসহ মোংলা বন্দরের মালামাল পরিবহণ করা হবে।

এছাড়া উত্তর অঞ্চলের পঞ্চগড় থেকে বাংলাবন্ধ হয়ে ভারতের শিলিগুড়ির সঙ্গে এ রেল যোগাযোগ সরাসরি সংযুক্ত হবে। এরফলে ভারত, নেপাল ও ভুটান সরাসরি রেল পথে পণ্য পরিবহনে মোংলা বন্দর ব্যবহারের সুযোগ পাবে। এই রেলপথের মধ্যদিয়ে জাতীয় অর্থনীতির অগ্রগতিতে বড় ধরনের ভূমিকা রাখবে এ মোংলা বন্দর।

এসময় খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. মামুনুর রশিদ, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আফসানা ইয়াসমিন, মোংলা-খুলনা রেল প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী আ রহিম উপস্থিত ছিলেন।

পরে মন্ত্রী মোংলা-খুলনা রেল লাইন ও খুলনার রূপসা নদীর উপর নির্মিতব্য রেল সেতু কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।

বিগত ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে সরকার মোংলা- খুলনা রেললাইন নির্মাণের প্রকল্প হাতে নেয়। মোংলা-খুলনা নির্মাণাধীন রেললাইন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮০১ কোটি ৬১ লাখ টাকা। এর মধ্যে রেললাইনে ব্যয় হবে ১ হাজার ১৪৯ কোটি ৮৯ লাখ টাকা, ব্রিজের জন্য ১ হাজার ৭৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ও জমি অধিগ্রহণে ১ হাজার আট কোটি টাকা।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

  1. © স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers