সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে জেলে আহত হওয়ার দু’দিন লোকালয়ে বাঘের গর্জন নির্বাহী প্রকৌশলীর উপর হামলার প্রতিবাদে ফকিরহাটে মানববন্ধন ফকিরহাট খাদ্যগুদামে বিদায়ী ও নবাগত কর্মকর্তাদের সংবর্ধনা ফকিরহাটে কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনায় মামলা,দু’জন আটক প্রকৌশলীর উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের শাস্তির দাবিতে বাগেরহাটে মানববন্ধন প্রেসক্লাব রামপালের কমিটি গঠন সভাপতি সবুর রানা সম্পাদক সুজন মজুমদার বাগেরহাটে দৈনিক গনমুক্তির ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মোংলা সুন্দরবনে গোলপাতা আহরন মৌসুম শুরু ফকিরহাটে নিখোঁজ হওয়ার একসপ্তাহ পর কলেজ ছাত্র অনিকের লাশ উদ্ধার ফকিরহাটের পিলজঙ্গের কংগ্রেস মোড়ের অদুরে ছিনতাই সংঘঠিত
উচ্চমাধ্যমিক বাংলা দ্বিতীয় পত্র

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা দ্বিতীয় পত্র

চুলকাঠি ডেস্ক : পরীক্ষায় সাধারণত শিক্ষার্থীরা বাংলা দ্বিতীয় পত্রের ব্যাকরণ অংশকে কঠিন মনে করে থাকে, যার কারণে তাদের বাংলা বিষয়ে আশানুরূপ ফলাফল হয় না। তাই আজ আমরা বোর্ড পরীক্ষায় অনেক বার আসা একটি প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা করব। আশা করি সুপ্রিয় শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে।

প্রশ্নঃ বাংলা একাডেমীর প্রমিত বাংলা বানানের পাঁচটি নিয়ম উদাহরণ সহ লেখ।

উত্তর: বাংলা একাডেমী কর্তৃক বাংলা বানানের সঠিক নিয়ম অনুসারে নির্ভুল বাংলা বানানের ধারণা লাভ করার জন্য যে বানান পদ্ধতি সম্পর্কে সম্যক ধারণা থাকা প্রয়োজন তা হলো বাংলা একাডেমী প্রমিত বাংলা বানান। নিম্নে বাংলা একাডেমী প্রমিত বাংলা বানানের নিয়ম উদাহরণসহ উল্লেখ করা হলোঃ
১। বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত অবিকৃত সংস্কৃত শব্দের বানান যথাযথ ও অপরিবর্তিত থাকবে। তবে যে সব তৎসম শব্দে ই ঈ বা উ ঊ উভয়ই শুদ্ধ সেই সব শব্দে কেবল ই বা উ তার কার চিহ্ন ি, ু ব্যবহৃত হবে। যেমন: কিংবদন্তি, খঞ্জনি, চিৎকার, ধমনী, পদবী, ধূলী, পঞ্জি ইত্যাদি।

২। রেফ এর পরে ব্যঞ্জনবর্ণের দিত্ব হবে না। যেমন: কর্দম, কর্তন, কর্ম, কার্য, গর্জন, কার্তিক, বার্ধক্য, বার্তা, সূর্য, অর্চনা, বর্জন ইত্যাদ।

৩। সন্ধির ক্ষেত্রে ক খ গ ঘ পরে থাকলে পদের অন্তস্থিত ম্ স্থানে অনুস্বার ং লেখা যাবে। যেমন: অহম্+কার=অহংকার, এরূপ- ভয়ংকর, সংগীত, শুভংকর, হৃদয়ংগম, সংগঠন। তবে সন্ধিবদ্ধ না হলে ঙ স্থানে ং হবে না। যেমন: অঙ্ক, অঙ্গ, আকাঙ্ক্ষা, আতঙ্ক, কঙ্কাল, গঙ্গা, বঙ্কিম, বঙ্গ, লঙ্ঘন, সঙ্গী।

৪। ক্ষীর, ক্ষুর ও ক্ষেত শব্দ খির, খুর ও খেত না লিখে সংস্কৃত মূল অনুসরণে ক্ষীর, ক্ষুর ও ক্ষেত -ই লেখা হবে। তবে অ-তৎসম শব্দ খুদ, খুদে, খুর, খেপা, খিধে ইত্যাদি লেখা হবে।

 

৫।সকল অতৎসম অর্থাৎ তদ্ভব, দেশি, মিশ্র শব্দে কেবল ই এবং উ এবং এদের কার চিহ্ন ি ু ব্যবহৃত হবে। এমনকি স্ত্রীবাচক ও জাতিবাচক ইত্যাদি শব্দের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। যেমন- বাড়ি, গাড়ি, ভারি, দাড়ি, শাড়ি, তরকারি, বোমাবাজি, দাবি, আরবি, খুশি, হিজর।

দেশের এই মহামারী সময়ে যেন কোন ভাবে থেমে না থাকে পড়াশোনা তাই আমরা আছি তোমাদের সাথে। নিয়মতি শিক্ষা বিষয়ক তথ্য থাকবে তোমাদের জন্য। আর অবশ্যই প্রতিদিনের পাঠ প্রতিদিন শেষ করে রাখবে। প্রত্যেকে সতর্ক থাকবে, বার বার জীবাণুনাশক দিয়ে হাত ধৌত করতে হবে। প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

উপস্থাপনায় : রাহুল বণিক বিবিএ(সম্মান), এমবিএ(হিসাববিজ্ঞান)

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers