মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ

আমাদের চুলকাঠি ২৪ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে , আমাদেরকে আপনাদের পরামর্শ ও মতামত দিতে পারেন chulkati24@gmail.com এই ই-মেইলে ।

শিরোনাম :
বাগেরহাটের শিকদার বাড়ী দুর্গামন্দির পরিদর্শন করলেন ডিসি-এসপি রামপালে শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে এমপি তন্ময় এর অনুদান বিতরণ অনিয়ম-দুর্নীতির দায়ে বিতাড়িত পঃ পঃ কর্মকর্তা এবার বাগেরহাটে বদলি বাগেরহাটে আপন ভাইদের মধ্য জয়গা-জমি নিয়ে বিরোধ বাগেরহাটে চাদার দাবীতে ব্যবসায়ীর জোরপূর্বক চেকে স্বাক্ষর নেওয়ার অভিযোগ বাগেরহাটে মিলন স্মৃতি সংসদ বহুতল ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন বাগেরহাটে বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ উদ্বোধন রাখালগাছি ইউপি নির্বাচনে দলীয় ভাবে ও জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রবিউল ইসলাম ফারাজী রামপালে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি থেকে বাদ দেওয়ায় মানববন্ধন বাগেরহাটে কাভার্ডভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম গুরুত্ব

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম গুরুত্ব

নিজস্ব ডেস্ক  : ১০১ টা কবর খনন করতে পারলে নাকি আল্লাহ তায়ালা মানুষের জীবনের সমস্ত গোনাহ মাফ করে দেন? মুহা. রাহিন আহমদ, বড়লেখা, মৌলভীবজার আল্লাহ তায়ালা মানুষের বড়-ছোট, প্রকাশ্য-গোপন সকল গোনাহই মাফ করে থাকেন। জীবনের সমস্ত গোনাহ মাফ করাও আল্লাহ তায়ালারই কাজ। কোরআন-হাদীসে অনেক আমল এমন বর্ণিত হয়েছে যার ফলে জীবনের সব গোনাহ মাফ হয়ে যায়। কিন্তু ১০১ টা কবর খনন সম্পর্কিত এমন তথ্য আমরা কোরআন-কিতাবে পাইনি। মানুষের কবর খনন করে দেয়া নিঃসন্দেহে সওয়াবের কাজ। কিন্তু ১০১ এর পরিমাণ নির্ধারণ করে তা খনন করা এবং জীবনের সব গোনাহ মাফের সাথে একে শর্তরূপে জুড়ে দেয়ার চেতনাটি শরীয়তের মর্ম বিরোধী। এটা প্রচলিত লোককথা বা মনগড়া তথ্য। যা সম্ভবত ধর্মীয় কুসংস্কারের ভিত্তিতে রচিত হয়ে থাকবে।
প্রশ্ন : আমি আমিরাতে চাকরি করি। বিয়ের সাত দিনের মাথায় ছুটি ফুরিয়ে যাওয়ায় দেশ থেকে চলে আসতে হয়েছে। দু’বছর যাবত বাড়ি যেতে পারি না। স্ত্রীকে আমিরাতে আনা সম্ভব হচ্ছে না। এখন সে তালাক চাচ্ছে। আমি এখন কী করতে পারি?
হাকিম মোল্লা, আরব আমিরাত।
উত্তর : এত অল্প ছুটি হাতে থাকতে এবং স্ত্রীকে সাথে রাখার নিশ্চয়তা না থাকা অবস্থায় আপনার বিয়ে করাই ঠিক হয়নি। স্বামী-স্ত্রীর বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার প্রধান উদ্দেশ্য একসঙ্গে থাকা। সন্তানাদি হওয়া। যেহেতু আপনি অপারগ আর আপনার স্ত্রী এ দূরত্ব মেনে নিতে সম্মত নয়, অতএব উভয়পক্ষের আত্মীয়-স্বজনের মাধ্যমে একটি ফায়সালায় আসা উচিত। আমাদের দেশে প্রবাসীরা এমন অস্বস্তিকর বিয়ে-শাদী করে। যাতে স্বামী-স্ত্রী উভয়ের চরম কষ্ট হয়। বিয়ের উদ্দেশ্যও নষ্ট হয়ে যায়। অনেক সময় উভয়ের জীবনেই গোনাহ সংঘটিত হয়। সমাজ তখন নানা কথা বলে। কিন্তু শরিয়তের নির্দেশনা লোকেরা ফলো করে না। এ দেশের অসংখ্য স্বামী-স্ত্রীর মতো অসুখী জীবন নিয়েও যারা ধৈর্য ও সততার পথে রয়েছেন তাদের কথা আলাদা। তবে যারা এমন জীবন চান না, তাদের আপসে আলাদা হয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। অনেক খারাপের চেয়ে এটি কম খারাপ।
-আল্লামা মুফতী উবায়দুর রহমান খান নদভী

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায়..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০২০২১, www.chulkati24.com

কারিগরি সহায়তায়ঃ-SB Computers